আজ ৪ঠা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৮ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

‘ইসলামী কর্মকান্ডে বাধা প্রদান করা ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার শামিল’

সিলেট জেলা প্রতিনিধি: বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটি সিলেট বিভাগের উদ্যোগে আলিয়া মাদরাসা মাঠে তিনদিন ব্যাপী ওয়াজ মাহফিল প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞার কারনে এবার অনুষ্ঠিত হচ্ছেনা বলে জানিয়েছেন আয়োজকরা। তারা অভিযোগ করে বলেছেন, সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের কাছ থেকে ১ ডিসেম্বর লিখিত অনুমতি নিয়ে কার্যক্রম পরিচালনা করলেও ৬ ডিসেম্বর হঠাৎ করে প্রশাসন মাহফিল বন্ধের নির্শেদ দেন।

মঙ্গলবার সিলেট প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটি সিলেট বিভাগের নেতৃবৃন্দ। এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন কমিটির সিলেট বিভাগীয় শাখার সভাপতি প্রফেসর ডা. মোয়াজ্জেম হোসেন খান।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে প্রফেসর ডা. মোয়াজ্জেম হোসেন খান বলেন, বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটি সমাজ সেবা মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধিত একটি ধর্মীয় ও সামাজিক সংগঠন। মরহুম মাওলানা সৈয়দ ইসহাক (রহ.) প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটি সামাজিক উন্নয়ন কর্মকান্ডের পাশাপাশি দেশব্যাপী ওয়াজ মাহফিল ও হালকায়ে জিকিরের আয়োজন করে সামাজিক মূল্যবোধ সৃষ্টি ও ধর্মীয় অনুশাসন প্রতিষ্ঠায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে।

২০০৩ সাল থেকে বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটি সিলেট এর উদ্যোগে আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে প্রতিবছর ওয়াজ মাহফিল ও হালকায়ে জিকিরের আয়োজন করা হয়ে থাকে। এ বছর ১০, ১১ এবং ১২ ডিসেম্বর আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে ৩দিন ব্যাপী ওয়াজ মাহফিলের আয়োজন করা হয়। সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের কাছ থেকে ১ ডিসেম্বর লিখিত অনুমতি নিয়ে ওয়াজ মাহফিল সফলের লক্ষ্যে প্রচার-প্রচারণা, পোস্টার, লিফলেট, ব্যানার, তোরন, মাইকিং এবং অতিথিবৃন্দকে আমন্ত্রণ জানিয়ে কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছিল। প্রস্তুতিমুলক কার্যক্রমে কয়েক লক্ষাধিক টাকা ইতোমধ্যে ব্যয় করে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। এমতাবস্থায় ৬ ডিসেম্বর সিলেটের পুলিশ কমিশনার অফিসের পক্ষ থেকে ওয়াজ মাহফিলের সকল কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়ার ব্যাপারে নির্দেশ প্রদান করা হয়। তবুও আমরা মাহফিল আয়োজনের ব্যাপারে প্রশাসনের সর্বোচ্চ সহযোগিতা নিতে চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছি।

সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করে ডাঃ মোয়াজ্জেম বলেন, ৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিলেট জেলা ও মহানগরের বিক্ষোভ মিছিল শেষে ছাত্রলীগের জয়বাংলা স্লোগান দিয়ে কিছু যুবক আলিয়া মাদ্রাসা মাঠ এর মাহফিল প্রচারে জন্য তৈরিকৃত চৌহাট্টা পয়েন্টের তোরন ভাঙচুর করে আগুন ধরিয়ে দেয় এবং সুবিদবাজার পয়েন্ট সহ বিভিন্ন জায়গায় আমাদের ওয়াজ মাহফিলের প্রচার মাইকিংয়ের গাড়িতে হামলা এবং চালককে মারধর করে। আমরা উক্ত বিষয়ে প্রশাসনের উর্ধ্বতন মহলের নিকট লিখিত অভিযোগ দিয়েছি। কিন্তু সিলেটের পুলিশ প্রশাসন এ ব্যাপারে কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করে উল্টো নিরাপত্তার অজুহাতে আমাদের ওয়াজ মাহফিল বন্ধ করার নির্দেশ দেন। ৯২ ভাগ মুসলমানের একটি দেশে ইসলামী কর্মকান্ডে বাধা প্রদান করা ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার সামিল। সংবাদ সম্মেলনে ছাত্রলীগের এমন ইসলাম বিরোধী কর্মকান্ডের তীব্র নিন্দা জানান তারা। সেই সাথে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগে জড়িতদের গ্রেপ্তার করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে প্রশাসনের প্রতি জোর দাবী জানান।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটি সিলেট বিভাগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম, সিলেট জেলা ছদর আলহাজ্ব আব্দুল করিম, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ ইসহাক আহমদ, সদস্য আলহাজ নজির আহমদ, মুফতী সাঈদ আহমদ, ডাঃ রিয়াজুল ইসলাম রিয়াজ, হাফিজ মাওলানা মাহমুদুল হাসান, আলহাজ্ব হাফিজ মাওলানা ইমাদ উদ্দিন সহ বিভাগীয় ও জেলা নেতৃবৃন্দ।

আপনার মতামত দিন
0Shares

স্যোসাল মিডিয়াতে দেখুন আমাদের সংবাদ

Follow us on Facebook Follow us on Twitter Follow us on Pinterest 0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     একই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ