আজ ১৯শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ইসলামী শিক্ষাব্যবস্থা ছাড়া প্রকৃত মানুষ গড়া সম্ভব নয়: মুফতী ফয়জুল করীম

নারায়ণগঞ্জ : ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর নায়েবে আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম (শায়েখে কামেল চরমোনাই) বলেছেন, ইসলামী শিক্ষাব্যবস্থা ছাড়া প্রকৃত মানুষ গড়া সম্ভব নয়। ইসলামী শিক্ষা মানুষের মনুষ্যত্বকে জাগ্রত করে। নৈতিকতা বিতর্কিত শিক্ষা দ্বারা মানুষকে মানুষ হিসেবে গড়ে তোলা সম্ভব নয়। তাই বিতর্কিত শিক্ষানীতি, শিক্ষাআইন এবং হিন্দুত্ববাদী ও নাস্তিক্যবাদী পাঠ্যসূচি দিয়ে সন্ত্রাস, দুর্নীতি বন্ধ করা সম্ভব নয়। ইসলামী শিক্ষা মানুষের মগজ ও মনন আল্লাহমুখি করে তোলে। ফলে তার দ্বারা ইসলাম সমর্থন করে না এমন কাজ সংঘটিত হওয়া সম্ভব নয়। তাই সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ বা উগ্রপন্থার সাথে প্রকৃত ইসলামী শিক্ষায় শিক্ষিতরা জড়িত হতে পারে না।
শনিবার (৭ অক্টোবর’১৭) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ জাংগালিয়া হাইস্কুল মাঠে বিশাল ইসলামী সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
মুফতী সৈয়দ ফয়জুল করীম বলেন, পাঠ্যসূচি পরিবর্তনের মত ইসলামের ওপর এত বড় আঘাত ইতোপূর্বে আর হয়নি। কাজেই রক্ত ও জীবন দিয়ে হলেও নাস্তিক্যবাদী ও হিন্দুত্ববাদী সিলেবাস বাতিল করাতে হবে। সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের ধোয়া তুলে হিন্দুত্ব ও নাস্তিক্যবাদী সিলেবাস বিরোধী আন্দোলন দমানোর চেষ্টা হলে তা রুখে দাড়াতে হবে। জঙ্গিবাদ সৃষ্টি করে ইসলামের অনেক বড় ক্ষতি সাধন করছে ইসলামবিরোধী শক্তিগুলো।
তিনি আরো বলেন, আমাদের ধর্ম-বিশ্বাস ও আমাদের স্বকীয় সংস্কৃতি ধ্বংস করার জন্য গভীর চক্রান্ত শুরু হয়েছে। জাতীয় শিক্ষানীতি ২০১০ ও শিক্ষা আইন ২০১৬ সেই ষড়যন্ত্রেরই অবিচ্ছেদ্য অংশ। আমরা এর প্রতিবাদ করেছিলাম। সরকার আমাদের আপত্তি তোয়াক্কা না করে একতরফাভাবে জাতীয় শিক্ষানীতি এবং ইসলাম ধর্মবিহীন পাঠ্যসূচি অনুমোদন করেছে।
 

আপনার মতামত দিন
1.1K+Shares

স্যোসাল মিডিয়াতে দেখুন আমাদের সংবাদ

Follow us on Facebook Follow us on Twitter Follow us on Pinterest 0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     একই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ