আজ ৩রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৭ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ইসলাম ও মুসলমানদের নিশ্চিহ্ন করতে কুফরী শক্তি ঐক্যবদ্ধ : পীর সাহেব চরমোনাই

আইএবি নিউজ (বরিশাল) : ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী সৈয়দ মোহাম্মদ রেজাউল করীম (পীর সাহেব চরমোনাই) বলেছেন, বিশ্বব্যাপী ইসলাম ও মুসলমানদের নিশ্চিহ্ন করতে আল-কুফরু মিল্লাতুন ওয়াহিদাহ হয়ে মাঠে নেমেছে। মুসলমানদের নতুন করে মূর্তির সংস্কৃতিতে নিমজ্জিত করতে মৃণাল হক নামের কুলাঙ্গারদেরকে ব্যবহার করে মসজিদের নগরীকে মূর্তির নগরীতে পরিণত করতে আদাজল খেয়ে মাঠে নেমেছে। মূর্তির সংস্কৃতিকে রুখে দিতে হবে। ৯২ ভাগ মুসলমানকে পৌত্তলিকতার দিকে নিয়ে যেতে চাইলে কাউকে ছেড়ে দেয়া হবে না। মূর্তি ধ্বংস করতে হবে এবং তা ঈদের আগেই।
পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, মুসলমানরা যতদিন ইসলামের উপর মজবুত ছিল, ততদিন ইসলামের উপর আঘাত করতে কোন শক্তিই সাহস পায়নি। মুসলমানরা যখন নিজেদের স্বকীয়তা হারিয়ে অমুসলিমদের রীতি-নীতি গ্রহণ করতে শুরু করেছে তখন থেকেই ইসলাম ও মুসলমানদের বিরুদ্ধে সকল কুফরী শক্তি ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ শুরু করেছে। এমতাবস্থায় আল্লাহর নির্দেশ “আল্লাহর রুজুকে আঁকড়ে ধরে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে” মুসলমানরা ঐক্যবদ্ধ হলে ইসরাইলসহ বাংলাদেশেও যারা আসন গেড়ে বসেছে তারা এক মুহুর্তও টিকে থাকতে পারবে না।
তিনি বলেন, পর্দার বিধানের খেলাফ করে নারী নেতৃত্বের সাথে ইফতার করা ওলামাদের জন্য শোভনীয় নয়। ইসলামের আদর্শ জলাঞ্জলি দিয়ে কখনোই ইসলামের উপকার করা যাবে না। ইসলামকে বিজয়ী করার সংগ্রামে অবতীর্ণ হতে যেয়ে তাগুতি শক্তির সহযোগী হওয়া যাবে না।
পীর সাহেব চরমোনাই আরো বলেন, ইসলাম এসেছে বিজয়ের জন্য। মুসলমানরা ইসলাম বুঝতে পারেনি, ইসলামের পক্ষে নিরঙ্কুশ অবদান রাখতে পারেনি। বাতিলের সাথে আপোস করে ইসলামের উপকার করা যাবে না। তিনি সকলকে ইসলামের জন্য সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহণ করার আহ্বান জানান।
আজ রবিবার সকালে বরিশালের চরমোনাই মাদরাসা ময়দানে ১৫ দিনব্যাপী বিশেষ তালিম তারবিয়াতের ৯ম দিনের আলোচনায় পীর সাহেব চরমোনাই উপরোক্ত কথা বলেন।
পীর সাহেব চরমোনাই ছাড়াও নায়েবে আমীরুল মুজাহিদীন আল্লামা মুফতী সৈয়দ মোহাম্মদ ফয়জুল করীম, প্রিন্সিপাল মাওলানা মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল-মাদানী, মাওলানা মুজিবুর রহমান কালিশ্বরী, মাওলানা জিয়াউল করীম, মুফতী এছহাক মু. আবুল খায়ের চেয়ারম্যানসহ দরবারের খলিফাগণ আলোচনা করেন।

আপনার মতামত দিন
3.6K+Shares

স্যোসাল মিডিয়াতে দেখুন আমাদের সংবাদ

Follow us on Facebook Follow us on Twitter Follow us on Pinterest 0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     একই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ