আজ ৩রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৭ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ইসি’র ঘোষিত রোডম্যাপ জাতিকে হতাশ করেছে : মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল-মাদানী

আইএবি নিউজ : ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর প্রসিডিয়াম সদস্য অধ্যক্ষ মাওলানা সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল-মাদানী বলেছেন, প্রধান নির্বাচন কমিশনার এ কে এম নূরুল হুদা নির্বাচনী রোডম্যাপ ঘোষণা উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলনে প্রদত্ত বক্তব্যে নতুন কোন চমক নেই। তার বক্তব্য গতানুগতিক ও ‘আওয়ামী লীগ-এর এজেন্ডা বাস্তবায়নে সহায়ক। তার এধরণের বক্তব্য সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করবে। মাওলানা মাদানী বলেন, গোটা জাতি আজ এ ব্যাপারে একমত যে, বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর অধীনে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ জাতীয় সংসদ নির্বাচন আদৌ সম্ভব নয়। তার অধীনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন হলে তাতে ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনেরই পুনরাবৃত্তি ঘটবে। এ ধরনের প্রহসনের নির্বাচন অনুষ্ঠানের যেকোনো উদ্যোগ জাতি ঘৃণার সাথে প্রত্যাখ্যান করবে।
তিনি আরো বলেন, জাতি আশা করেছিল বর্তমান নির্বাচন কমিশন সাবেক নির্বাচন কমিশনের পক্ষপাতমূলক পরিস্থিতি থেকে বের হয়ে আসবে। বর্তমান সরকারের অধীনে কোনোভাবেই অবাধ, নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে পারে না। প্রত্যাশা ছিল নির্বাচন কমিশনের রোডম্যাপ ঘোষণায় জাতি আশান্বিত হবে। কিন্তু রোডম্যাপ ঘোষণা জাতিকে হতাশ করেছে।
দেশবাসী নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে সব দলের অংশগ্রহণে একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন দেখতে চায়। এ ব্যাপারে সব দল একমত। জাতি প্রকৃত ভোটাধিকার ফিরে পেতে চায়।
আজ সকালে ১০টা থেকে দলীয় কার্যালয়ে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর উদ্যোগে দফতর ভিত্তিক তারবিয়াতে সভাপতির বক্তব্য তিনি একথা বলেন। এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মহাসচিব অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ, রাজনৈতিক উপদেষ্টা অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, সহকারি মহাসচিব আলহাজ্ব আমিনুল ইসলাম, প্রকৌশলী আশরাফুল আলম, শায়খুল হাদীস মকবুল হোসাইন, ঢাকা উত্তর সভাপতি অধ্যক্ষ শেখ ফজলে বারী মাসউদ, মুফতি হেমায়েতুল্লাহ। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মাওলানা আব্দুল কাদের, দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, কেএম আতিকুর রহমান, মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, মাওলানা লোকমান হোসাইন জাফরী, আলহাজ্ব হারুন অর রশিদ, মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাকী, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল ওয়াদুদ, এ্যাডভোকেট একেএম এরফান খান প্রমুখ।
মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ বলেন, জেলা দায়িত্বশীলদেরকে যোগ্যতা, দক্ষতা ও বিচক্ষনতার স্বাক্ষর রাখতে হবে। এজন্য সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধি করতে মনোযোগী হতে হবে। তিনি নির্বাচনের প্রস্তুতি গ্রহণের জন্য জেলা দায়িত্বশীলদেরকে তাগিদ প্রদান করেন।

আপনার মতামত দিন
2K+Shares

স্যোসাল মিডিয়াতে দেখুন আমাদের সংবাদ

Follow us on Facebook Follow us on Twitter Follow us on Pinterest 0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     একই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ