আজ ৭ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২১শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

উত্তরবঙ্গকে দুর্গত এলাকা ঘোষণা করে উদ্ধার ও ত্রাণ তৎপরতা জোরদার করতে হবে: পীর সাহেব চরমোনাই

আইএবি নিউজ : ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই বলেছেন, সমগ্র উত্তরবঙ্গ আজ বন্যার পানিতে ভাসছে। লক্ষ লক্ষ মানুষ আজ পানিবন্দি হয়ে আছে। অনেক মানুষ ইতোমধ্যেই মারা গেছে। বহু গবাদী পশু ভেসে যাচ্ছে। আরো নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। বন্যাকবলিত উত্তরবঙ্গে উদ্ধার তৎপরতা আরো জোরদার করা দরকার। সরকারের পক্ষ থেকে ত্রাণ তৎপরতা আরো বাড়ানো দরকার। এমতাবস্থায় বন্যাকবলিত উত্তরবঙ্গকে দুর্গত এলাকা ঘোষণা করে সেখানে জরুরী ভিত্তিতে উদ্ধার ও ত্রাণ তৎপরতা চালানো প্রয়োজন। উদ্ধার ও ত্রাণ তৎপরতায় সেনা বাহিনী ও বিমান বাহিনী নিয়োগ করে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষকে বাচাতে হবে।
আজ (বুধবার ) বিকেলে রাজধানীর মোহাম্মদপুর টাউন হল মিলনায়তনে ইসলামী যুব আন্দোলন আয়োজিত যুব সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান। মুহাম্মদ আহসান রুবেলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত যুব সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন যুব আন্দোলনের সেক্রেটারী জেনারেল মাওলানা মুহাম্মদ নেছার উদ্দিন, ছাত্রনেতা আল-আমীন, ইঞ্জিনিয়ার মু. মুরাদ হোসেন, প্রকৌশলী গিয়াস উদ্দিন পরশ, ছাত্রনেতা জিএম বায়েজীদ, শরীফুল ইসলাম, আলহাজ্ব দেওয়ান মিজানুর রহমান, আলহাজ্ব কাজী আবুল বাশার, মু. বেলায়েত হোসেন, মু. আব্দুর রহীম, হাজী মু. মফিজুল ইসলাম, নূরে আলমসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।
পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, ভারত থেকে ধেয়ে আসা বন্যার পানিতে উত্তর, মধ্য ও উত্তর-পূর্বাঞ্চাল মারাত্মক রূপ নিচ্ছে বন্যা ও বন্যাজনিত কারণে নদীভাঙ্গন। এমতাবস্থায় রাজনৈতিক ঝগড়া-বিবাদ পরিহার করে সরকার ও বিরোধী দল সবাইকে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাড়াতে হবে এবং বন্যা পরিস্থিতি থেকে বাচার জন্য আল্লাহর কাছে ইস্তেগফার ও তওবা করতে হবে।
পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, বন্যা কবলিত আশরাফুল মাখলুক বনি আদম বাঁচার জন্য রাব্বুল আলামিনের দরবারে ফরিয়াদ করছে। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষ খাদ্য ও বিশুদ্ধ পানিসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের অভাবে মানবেতর জীবন যাপন করছে। বানভাসী মানুষ বাঁচার জন্য আশ্রয় খুঁজছে। বানভাসী মানুষ একটু আশ্রয় ও খাবারের জন্য আর্তনাদ করছে। তিনি বন্যাদূর্গতদের পাশে সরকারের পাশাপাশি সমাজের বিত্তবান, সেবা সংস্থা ও সংগঠনের সর্বস্তরের নেতাকর্মীদেরকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

আপনার মতামত দিন
0Shares

স্যোসাল মিডিয়াতে দেখুন আমাদের সংবাদ

Follow us on Facebook Follow us on Twitter Follow us on Pinterest 0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     একই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ