আজ ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

কৃষকের হৃদয়ে রক্তক্ষণ সহ্য করা হবে না : শহিদুল ইসলাম কবির

স্টাফ রিপোর্টারঃ ইসলামী কৃষক-মজুর আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম কবির বলেছেন, বাংলাদেশকে স্বাধীন করতে ১৯৭১ এ মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেয়া মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে শতকরা ৯০ জন কৃষক হলেও স্বাধীনতার ৪৭ বছরে কৃষকরা আজো তাদের ন্যায্য অধিকার ও মর্যাদা পায়নি। তিনি বলেন, কৃষকের উন্নয়নের কথা বলে যখন যারা সরকারে ছিলো ও আছে, তারা সকলেই নিজেদের উন্নয়ন ঘটিয়েছে। বিলাসিতা ও ক্ষমতাকে স্থায়ী করতে নিজেদের বেতন ভাতা বৃদ্ধি করেই চলেছে। ব্যাংক লুটপাট করে দেশের অর্থনীতিকে ধ্বংসের দারপ্রান্তে নিয়ে গেছে। কিন্ত কৃষকের স্বার্থে বাজার ব্যবস্থাপনা, প্রক্রিয়াজাতকরণ, সংরক্ষণ ও আধুনিক কলাকৌশল প্রণয়নে তারা বরাবর নিরবতা পালন করে আসছে।
ইসলামী কৃষক-মজুর আন্দোলন ব্রাম্মণবাড়ীয়া জেলা শাখা গঠন উপলক্ষে গতকাল ১৭ ফেব্রুয়ারী টিএ রোডস্থ আইএবি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথা বলেন। ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন ব্রাম্মণবাড়ীয়া জেলা শাখা সভাপতি শেখ মু. শাহ আলমের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শাহ মোহাম্মাদুল্লাহ’র পরিচালনা এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের জেলা সভাপতি মাওলানা আবুল কালাম আজাদ, সেক্রেটারী মোহাম্মদ ওবাইদুল হক ও বামুকের জেলা ছদর সৈয়দ আনোয়ার আহমেদ।
এছাড়া আরো বক্তব্য রাখেন মাওলানা মাহমুদুল হাসান হিফয, মাওলানা এরশাদুল ইসলাম, মাওলানা সৈয়দ আসাদুল করীম, মাওলানা বেলাল হোসাইন, সিরাজুল ইসলাম, সাবেক ছাত্র নেতা ইবরাহিম খলিল, ইউনুছ আহমদ ছাতিয়ানী ও ছাত্র নেতা মোঃ আবু হানিফ।
[contact-form][contact-field label=”Name” type=”name” required=”true” /][contact-field label=”Email” type=”email” required=”true” /][contact-field label=”Website” type=”url” /][contact-field label=”Message” type=”textarea” /][/contact-form]
শহিদুল ইসলাম কবির আরো বলেন, জাতীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বার বার বলা হচ্ছে, কৃষকরা  সবজি উৎপাদনের রেকর্ড করলেও তাদের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হয়। তাদের উপযুক্ত মূল্য পাওয়ার কোনো ব্যবস্থাপনা গড়ে তোলা হয়নি। তিনি বলেন, কৃষকদের এ দূর অবস্থা আর বেশীদিন চলতে দেয়া হবে না। কৃষক উৎপাদন করবে আর ন্যায্য মূল্যে ফসল বিক্রয় করতে না পারার কারনে হৃদয়ে রক্তক্ষরণ নয়, কৃষকরা জাগতে শুরু করেছে। কৃষকরা পীর সাহেব চরমোনাইর নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আন্দোলন করে তাদের ন্যয্য অধিকার প্রতিষ্ঠা করেই ছাড়বে ইনশাআল্লাহ।
সভায় সর্বসম্মতিক্রমে মোহাম্মদ মুরাদ হোসেনকে আহবায়ক, মোঃ বিল্লাল মিয়াকে যুগ্ম আহবায়ক ও কাজী আলী আকবরকে সদস্য সচিব করে ইসলামী কৃষক-মজুর আন্দোলন ব্রাম্মণবাড়ীয়া জেলা শাখা কমিটি গঠন করা হয়।

আপনার মতামত দিন
0Shares

স্যোসাল মিডিয়াতে দেখুন আমাদের সংবাদ

Follow us on Facebook Follow us on Twitter Follow us on Pinterest 0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     একই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ