| |

জনগণের মৌলিক ও ভোটাধিকার ভুলুন্ঠিত: পীর সাহেব চরমোনাই

প্রকাশিতঃ 4:40 pm | February 12, 2020

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই বলেছেন, দেশের সামগ্রিক পরিস্থিতি অত্যন্ত মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। দেশের সাধারণ মানুষ এক শ্বাসরুদ্ধকর পরিস্থিতির সম্মুখীন। জনগণের মৌলিক ও ভোটাধিকার ভুলুন্ঠিত। মানবিক মূল্যবোধ বলতে নেই। নৈতিকতা ও মানবিক মূল্যবোধ চরম বিপর্যয়ের মুখে। মানুষ অধিকার বঞ্চিত। অধিকার ফিরে পেতে এদিকসেদিক ছুটছে। তিনি বলেন, ইসলামই একমাত্র সামগ্রিক অধিকার নিশ্চিত করেছে। এজন্য সকলকে ইসলামে ফিরে আসতে হবে। এছাড়া বিকল্প নেই।

আজ বুধবার সকালে পুরানা পল্টনস্থ আইএবি মিলনায়তনে সিএনজি অটোরিক্সা শ্রমিক আন্দোলনের কেন্দ্রীয় কাউন্সিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।  সংগঠনের সভাপতি মোঃ মোফাজ্জল হোসেন নান্নু মুন্সির সভাপতিত্বে এবং হাজী আব্দুল হাইয়ের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সম্মেলনে বিশেষ অতিথি ছিলেন মোহাম্মদ আশরাফ আলী আকন, অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, আলহাজ্ব আব্দুর রহমান, হাফেজ ছিদ্দিকুর রহমান, সৈয়দ ওমর ফারুক। বক্তব্য রাখেন আবুল হোসেন, সম্মেলনে ১১ দফা ন্যায্য দাবি পেশ করা হয়। দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে- হাইওয়ে রোডে সিএনজি অটোরিক্সার জন্য ভিন্ন লেন, ট্রাফিক সার্জেন্ট কর্তৃক অযথা হয়রানী, মামলা, জুলুম নির্যাতন বন্ধ, বাজারের সাথে সঙ্গতি রেখে সিএনজি ভাড়া নিধারণ অবৈধ প্রাইভেট সিএনজি ভাড়ায় যাত্রীবহন বন্ধ, কথা কথায় গাড়ীতে রেকার, মামলা বা ডামপিং বন্ধ, নির্দিষ্ট স্থানে পার্কিংর ব্যবস্থা না করে রং পার্কিং মামলা বন্ধ, সহজ শর্তে ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রদান, সরকার কর্তৃক নির্ধারিত ফি জমা, চালকদের জন্য গ্যাসের মূল্য ৩০টাকা ধার্য করা, মহানগরীতে রোড পারমিটহীন অবৈধ সিএনজি অটোরিক্সা চলাচল বন্ধ করতে হবে। এদিকে দুপুরে মৎসজীবী আন্দোলনের প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন। সভাপতিত্ব করেন অধ্যাপক আব্দুল করীম।