আজ ১৫ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩১শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

ধর্ষকদের কঠোর শাস্তির বিধান না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যেতে হবে

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নায়েবে আমীর আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম শায়খে চরমোনাই বলেছেন, নারী ধর্ষণ, হত্যা, নির্যাতন যে কোন সময়ের চেয়ে আশঙ্কাজনক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। মা-বোনদের ইজ্জতের নিরাপত্তা নেই। তিনি বলেন, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগ নেতা ধর্ষণ করে সেঞ্চুরী পালন করেছিলে তার বিচার হয়নি এবং জাবির আবাসিক হলে ছাত্রী অবৈধ বাচ্চা প্রসব করেছিলে, কিন্তু ধর্ষককে খুঁজে বের করা হয়নি। তিনি বলেন, সারাদেশে যেনা-ব্যভিচার আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে। ড্রেনে, ডাস্টবিনে নবজাতক পাওয়া যাচ্ছে। তিনি বলেন, ১৮ বছরের আগে মেয়েদের বিবাহ দিলে রাষ্ট্র তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়, কিন্তু ১৮ বছরের আগে যেনা-ব্যভিচার করলে রাষ্ট্র কোন ব্যবস্থা নেয় না, যেনা- ব্যভিচারে কোন অসুবিধা নেই। তাহলে ধর্ষণ বাড়বে না কমবে? রাষ্ট্রের আইনেই গলত। তিনি বলেন, ধর্ষকদের বিচারে কঠোর আইন ও শাস্তি না হওয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চলবে।

মুফতী ফয়জুল করীম বলেন তারিক বিন জিয়াদ এক অমুসলিম নারীর আর্তনাদ ও ইজ্জত রক্ষায় সিন্ধু বিজয়ের ঘোষণা দিয়ে তা জয় করেছিলেন। আজ আমাদের দেশে একজন, দুইজন নয়, হাজার হাজার নারীর ইজ্জত লুণ্ঠিত হচ্ছে, তারপরও কি বসে থাকবে? ঈমানী মশাল নিয়ে সবাইকে রাজপথে নেমে আসতে হবে।

গতকাল বিকেলে বরিশাল শহরের টাউন হল চত্ত¡রে সারাদেশে ক্রমবর্ধমান নারী নির্যাতন-ধর্ষণসহ নারীর প্রতি বর্বরতা এবং আইন-শৃঙ্খলার চরম অবনতির প্রতিবাদে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ বরিশাল জেলা ও মহানগর আয়োজিত বিশাল বিক্ষোভ পূর্ব সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। জেলা সভাপতি অধ্যাপক মাওলানা জাকারিয়া হামিদীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বরিশাল সিটি নির্বাচনে মেয়রপ্রার্থী মাওলানা উবায়দুর রহমান মাহবুব, মাওলানা সৈয়দ নাছির উদ্দিন কাওছারসহ জেলা ও মহানগর, সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

মুফতী ফয়জুল করীম বলেন, এদেশকে আর মানুষের দেশ বলা যায় না। হাল জামানা আউয়ামে জাহিলিয়াতকেও হার মানিয়েছে। তিনি বলেন, ইসলাম নারীদের সমান অধিকার নয়, বরং অগ্রাধিকার দিয়েছে। এখন নারীদের মুক্তি নিশ্চিত করতে হলে কুরআনে বর্ণিত অধিকার প্রতিষ্ঠায় সরকারকে কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, সিলেট এমসি কলেজের হোস্টেলে স্বামীকে বেঁধে স্ত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ তার প্রমাণ। ছাত্রলীগ প্রমাণ করলো তাদের হাতে নারী জাতিও আজ নিরাপদ নয়। তিনি বলেন, একদিকে নারী ধর্ষণ আশঙ্কাজনক হারে বৃদ্ধি অপরদিকে দুর্নীতির রেকর্ড দেশবাসীকে চরম শঙ্কিত করে তুলেছে।
মুফতী ফয়জুল করীম বলেন, দেশে একধরণের অস্থিরতা বিরাজ করছে। মানুষের জান-মাল, ইজ্জত আব্রæর নিরাপত্তা নেই। এমতাবস্থায় সকলকে দেশ, ইসলাম ও মানবতার স্বার্থ রক্ষায় ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।

আপনার মতামত দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category