আজ ২রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৬ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

নাগরিক অধিকার কেড়ে নিয়ে ক্ষমতায় টিকে থাকা যায় না: পীর সাহেব চরমোনাই

আইএবি নিউজ : ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম-পীর সাহেব চরমোনাই বলেছেন, সভা-সমাবেশ করতে না দিয়ে সরকার নাগরিক অধিকার কেড়ে নিচ্ছে। বিরোধী দলের কন্ঠরোধ করে আজীবন ক্ষমতায় থাকার চেষ্টা করছে। এভাবে জুলুম করে, ক্ষনস্থায়ী পার পেলেও অধিক সময় টিকে থাকার নজির ইতিহাসে নেই। পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ শক্তি ছিলো নমরুদ, ফেরাউন, সাদ্দাদ, হামান। জনগণের উপর জুলুম করে বেশি দিন টিকে থাকতে পারেনি। বর্তমান সরকারও পারবে না। কাজেই জুলুম-নির্যাতনে পথ পরিহার করে দেশ ও জনগণের পক্ষে কাজ করুন। নাগরিক অধিকার ফিরিয়ে দিন। সভা-সমাবেশ ও ধর্মীয় অনুষ্ঠানগুলোর উপর থেকে অঘোষিত নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়ে নাগরিক অধিকার ফিরিয়ে দিলে কল্যাণ হবে।
শুক্রবার (১৮ আগস্ট) বিকেল ৩টায় সংগঠনের পুরানা পল্টনস্থ আইএবি মিলনায়তনে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় মজলিসে আমেলার এক সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
সভায় উপস্থিত ছিলেন নায়েবে আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম, মহাসচিব অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ, রাজনৈতিক উপদেষ্টা অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, কেএম আতিকুর রহমান, মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, মাওলানা নেছার উদ্দিন, আলহাজ্ব হারুন অর রশিদ, মাওলানা আতাউর রহমান আরেফী, মুফতী সৈয়ধ নুরুল করীম, আলহাজ্ব আব্দুর রহমান, আলহাজ্ব জান্নাতুল ইসলাম, আলহাজ্ব কে.জি. মাওলা প্রমুখ।
পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, উত্তরবঙ্গে কোটি কোটি মানুষ পানিবন্দি হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে। বন্যায় একের পর এক মানুষ মরছে। বহু গবাদী পশু পানিতে ভেসে যাচ্ছে। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে সকলকে দাঁড়াতে হবে। ত্রাণ বিতরণে লক্ষ্যে সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের তত্ত্বাবধানে কয়েকটি ত্রাণ টিম কুড়িগ্রাম, রংপুর, সিরাজগঞ্জ, জামালপুর, গাইবান্ধা বন্যা কবলিত এলাকায় ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।
উল্লেখ্য যে, বন্যায় কবলিত এলাকার মানুষের সাহায্যের জন্য ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে ১৭ সদস্য বিশিষ্ট একটি কেন্দ্রীয় ত্রাণ কমিটি গঠন করা হয়েছে। বন্যার্তদের জন্য সাহায্য করতে চাইলে কেন্দ্রীয় অফিসে যোগাযোগ করে ত্রাণ জমা দেয়ার সুযোগ রয়েছে।

আপনার মতামত দিন
6K+Shares

স্যোসাল মিডিয়াতে দেখুন আমাদের সংবাদ

Follow us on Facebook Follow us on Twitter Follow us on Pinterest 0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     একই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ