আজ ১১ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৫শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

পাঠ্যসূচি পুনঃপরিবর্তনের চেষ্টার প্রতিবাদে ইসলামী আন্দোলনের বিক্ষোভ সমাবেশ শুক্রবার

আইএবি নিউজ : ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর মহাসচিব অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ বলেছেন, দীর্ঘদিনের আন্দোলন ও প্রতিবাদের পর প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে সরকারের নীতি নির্ধারকগণ বিষয়টির গুরুত্ব ও নাজুকতা উপলব্ধি করে পাঠ্যসূচি সংশোধন করেছিলেন। কিন্তু ইদানিং ইসলামবিরোধী নাস্তিক্যবাদী শক্তিগুলো সিলেবাস নিয়ে নতুন করে চক্রান্ত শুরু করেছে। সিলেবাস পুনঃপরিবর্তনে বামপন্থি, নাস্তিক-মুরতাদদের চক্রান্ত সহ্য করা হবে না।
তিনি বলেন, জাতিকে ইসলামশূন্য করার নাস্তিক্যবাদী চক্রান্ত দেশের ঈমানদার জনতা পূর্বের ন্যায় রক্ত দিয়ে প্রতিহত করবে এবং রাজপথে কঠোর আন্দোলন সংগ্রাম গড়ে তুলবে। তিনি সিলেবাসের মতো জাতীয় শিক্ষানীতি ২০১০-এর অসঙ্গতি দূর করতে নীতি নির্ধারকদের প্রতি জোর দাবী জানান। তিনি প্রস্তাবিত শিক্ষাআইন ২০১৬ অবিলম্বে প্রত্যাহার করার আহবান জানান।
মাওলানা ইউনুছ আহমাদ বলেন, ৯৫ ভাগ মুসলমানের ঈমান ও আমলের উপর চরম আঘাতকারী এই শিক্ষানীতি, শিক্ষা আইন ও সিলেবাস পুনঃপরিবর্তনের চক্রান্ত প্রয়োজনে ঈমানদার জনতা জীবন ও রক্ত দিয়ে প্রতিহত করবে। বিতর্কিত শিক্ষানীতি, শিক্ষাআইন এবং পাঠ্যসূচির মাধ্যমে বিরানব্বই ভাগ মুসলমানের দেশে মুসলমানিত্ব ধ্বংস করে হিন্দুত্ববাদ প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন কোনদিন পূরণ করতে দিবে না মুসলমানরা। ভারতের প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র বানানোর চক্রান্ত নিয়ে অতিকৌশলে সিলেবাসের মাধ্যমে নতুন প্রজন্মকে ঈমানহারা করার চেষ্টা করা হচ্ছে। ইসলামের উপর এত বড় আঘাত অতীতে কোনদিন হয়নি। তিনি দলমত নির্বিশেষে সকলকে ঈমান বিনাশী চক্রান্ত রুখে দাড়াতে ময়দানে নেমে আসার আহ্বান জানান।
সভায় সিলেবাস পুনঃপরির্বতনের চেষ্টা ও ভারতের গো-রক্ষার অজুহাতে মুসলিম হত্যার প্রতিবাদে ১৪ জুলাই শুক্রবার বাদ জুমআ বিক্ষোভ সমাবেশ এবং রাজধানীর ভয়াবহ জলাবদ্ধতা ও চিকনগুনিয়ার প্রকোপ থেকে নগরবাসীর রক্ষায় ব্যর্থতার প্রতিবাদে ১৯ জুলাই বুধবার সকাল ১০টায় মেয়র ভবন ঘেরাও কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।
শনিবার (৮ জুলাই) বিকেলে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ-এর এক যৌথ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
সংগঠনের ঢাকা মহানগর দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ ইমতিয়াজ আলমের সভাপতিত্বে এবং সেক্রেটারী মাওলানা এবিএম জাকারিয়ার পরিচালনায় অনুষ্ঠিত যৌথসভায় বক্তব্য রাখেন যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক হাফেজ মাওলানা এটিএম হেমায়েত উদ্দিন, মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, নগর সহ-সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুর রহমান ও আলহাজ্ব্ আলতাফ হোসেন, আলহাজ্ব আব্দুল আউয়াল, নুরুজ্জামান সরকার, মাওলানা এইচ এম সাইফুল ইসলাম, মাওলানা নজরুল ইসলাম, আলহাজ্ব আনোয়ার হোসেন, মাওলানা আব্দুর রাজ্জাক, এডভোকেট মাওলানা মুহিববুল্যাহ, আবু আশিক, আলহাজ্ব ইসমাঈল হোসেন, আলহাজ্ব জাহাঙ্গীর আলম, মাওলানা ইউনুছ তালুকদার, মোঃ আবুল হাসান প্রমুখ।
সভাপতির বক্তব্যে মাওলানা ইমতিয়াজ আলম বলেন, চাল, ঢালসহ দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতিরোধে কার্যকর ব্যস্থা গ্রহণে সরকার এখনও ব্যর্থ। মুসলমানের ঈমানের সাথে সংশ্লিষ্ট মূর্তি স্থাপনের ও নাস্তিক্যবাদী হিন্দুত্ববাদী পাঠ্যসূচি প্রর্বতনে পুনঃ চক্রান্ত যে কোন মূল্যে প্রতিহত করা হবে। সমকামীতার পৃষ্ঠপোষকতা দেয়ায় গ্রামীণ ফোনের রিচার্জ বন্ধ রাখার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান।
 

আপনার মতামত দিন
0Shares

স্যোসাল মিডিয়াতে দেখুন আমাদের সংবাদ

Follow us on Facebook Follow us on Twitter Follow us on Pinterest 0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     একই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ