আজ ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

মাদরাসা শিক্ষকদের যৌক্তিক দাবি মেনে নিতে প্রধানমন্ত্রীকে শায়খে চরমোনাই’র আহ্বান

আইএবি নিউজ: ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতী সৈয়দ মোহাম্মদ রেজাউল করীম- শায়েখ চরমোনাই শিক্ষা ব্যবস্থা থেকে বৈষম্য দূর করতে ইবতেদায়ী মাদরাসা শিক্ষকদের যৌক্তিক দাবি মেনে নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, বর্তমান সরকার ধর্মীয় শিক্ষাখাতে সবচেয়ে বেশি বরাদ্দ দিয়েছে বলে লোকমুখে শোনা গেলেও আমরণ অনশনরত ইবতেদায়ী মাদরাসা শিক্ষকদের যৌক্তিক দাবি সরকার মেনে নিচ্ছেন না, যা চরম অমানবিক।
তিনি বলেন, তীব্র শীতের মধ্যে দাবি নিয়ে মানুষ গড়ার কারিগর শিক্ষক সমাজ রাস্তায় আমরণ অনশন করে অমানবিক জীবন যাপন করছেন। অনশনকারী অসংখ্য শিক্ষক অসুস্থ হয়ে পড়ছে। এমতাবস্থায় মানবিক কারণেই তাদের যৌক্তিক দাবি মেনে নেয়া উচিত। দীর্ঘ ৩৩/৩৪ বছর যাবৎ শিক্ষকতা করেও তারা বেতন-ভাতা না পেয়ে পরিবার পরিজন নিয়ে অত্যন্ত মানবেতর জীবন যাপন করছেন। মিডিয়ায় অনশনকারী ইবতেদায়ী শিক্ষকদের করুণ চিত্র ফুটে উঠছে। এ অমানবিকতা মেনে নেয়া যায় না।
শায়েখ চরমোনাই বলেন, এক দেশে দুই নীতি শিক্ষা ব্যবস্থার জন্য শিক্ষার ক্ষেত্রে অশনিসংকেতও মনে করছেন শিক্ষাবিদগণ। প্রাইমারী শিক্ষকরা যে দায়িত্ব পালন করে সরকারি যে সকল সুযোগ-সুবিধা ভোগ করে থাকেন, একই দায়িত্ব পালন করে ইবতেদায়ী মাদরাসার শিক্ষকরা সে সুবিধা পান না। সুবিধা বঞ্চিত হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করে থাকেন। শিক্ষা ব্যবস্থায় এ বৈষম্যমূলক আচরণ নিরসন হওয়া জরুরী। এ তীব্র শীতে অনশনরত শিক্ষকদের দাবী মানবিক কারণে হলেও তাদের যৌক্তিক দাবি মেনে নেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আহবান জানাচ্ছি।
শায়েখ চরমোনাই বলেন, আমাদের দেশে প্রতি বছর হাজার হাজার কোটি টাকা বিভিন্নভাবে লুটপাট ও দুর্নীতি হয়। সেখানে মাত্র অল্প কিছু টাকা বরাদ্দ দিলে ইবতেদায়ী শিক্ষকরা অমানবিক জীবন যাপন থেকে বাঁচতে পারেন। তাই মানুষ গড়ার কারিগরদের অমানবিক জীবন যাপন থেকে বাঁচাতে এবং তাদের পরিবার পরিজনদেরকে বাচার সুযোগ করে দিতে ইবতেদায়ী শিক্ষকসহ সকল শিক্ষকদের ন্যায্য দাবি মেনে নিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।
 

আপনার মতামত দিন
0Shares

স্যোসাল মিডিয়াতে দেখুন আমাদের সংবাদ

Follow us on Facebook Follow us on Twitter Follow us on Pinterest 0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     একই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ