আজ ১১ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৫শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

রোহিঙ্গারা বাঙ্গালী হলে আরাকানো বাংলাদেশের অংশ: মুফতী ফয়জুল করীম

খাগড়াছড়ি : ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর সিনিয়র নায়েবে আমীর মুফতী সৈয়দ মু. ফয়জুল করীম বলেছেন, মিয়ানমারের মুসলমান নারী, পুরুষ ও শিশুদের উপর অং সান সুচির সামরিক জান্তাদের জুলুম-নির্যাতন, হত্যা, ধর্ষণ ইতিহাসের সকল জুলুম নির্যাতনকে হার মানিয়েছে। এমন বর্বরতা বিশ্ববাসী কখনো দেখেনি। মুসলমানদের রক্তে রঞ্জিত অং সান সুচিকে জাতিসংঘ নোবেল পুরস্কারে ভুষিত করে মুসলমানদের সাথে গাদ্দারী করেছে। তার নোবেল পুরস্কার বাতিল করতে হবে। জাতিসংঘ মুসলমান ও ইসলামবিদ্বেষীদের পুরস্কৃত করে মুসলমানদের সাথে তামাশা করেছে। কাজেই এই জাতিসংঘ দিয়ে মুসলমানদের কোন স্বার্থ রক্ষা হবে না, প্রয়োজন মুসলিম রাষ্ট্রগুলো সমন্বয়ে পৃথক মুসলিম জাতিসংঘ।
মুফতী ফয়জুল করীম রোহিঙ্গাদের স্থায়ী সমস্যা সমাধানে কফি আনান কমিশন বাস্তবায়নের দাবি জানিয়ে বলেন, রোহিঙ্গাদের নাগরিক সকল সুবিধা প্রতিষ্ঠার জন্য জাতিসংঘের নেতৃত্বে শান্তি রক্ষীবাহিনী প্রেরণ করতে হবে। রোহিঙ্গা অঞ্চলে অশান্তি সৃষ্টিকারী ঘাতক অং সান সুচির আন্তর্জাতিক আদালতে বিচার করতে হবে। অং সান সুচি বার বারই এক কথা বলছে, “রোহিঙ্গারা মিয়ানমারের নাগরিক নয়, বাঙ্গালী সন্ত্রাসী” যদি রোহিঙ্গারা বাঙ্গালী হয়, আরাকান বাংলাদেশের অংশ এবং আরাকানকে বাংলাদেশে ফেরত দিতে হবে। না হলে প্রয়োজনে নাফ নদী পাড়ি দিয়ে মুসলমানরা আরাকানকে উদ্ধার করে রোহিঙ্গা মুসলমানদের বুঝিয়ে দিবে।
শনিবার (৯ সেপ্টেম্বর’১৭) খাগড়াছড়ি রামগড় কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে বিশাল ইসলামী সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

আপনার মতামত দিন
4.4K+Shares

স্যোসাল মিডিয়াতে দেখুন আমাদের সংবাদ

Follow us on Facebook Follow us on Twitter Follow us on Pinterest 0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     একই ক্যাটাগরিতে আরো সংবাদ