আজ ১১ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

কবি আল মাহমুদের ইন্তেকালে ইশা ছাত্র আন্দোলনের শোক প্রকাশ

ডেক্স সংবাদ: বাংলা সাহিত্যের কিংবদন্তি কবি আল মাহমুদের মৃত্যুতে গভীরভাবে শোক প্রকাশ করেছেন ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন-এর কেন্দ্রীয় সভাপতি শেখ ফজলুল করিম মারুফ, সহ-সভাপতি এম. হাসিবুল ইসলাম ও সেক্রেটারি জেনারেল মুহাম্মাদ মুস্তাকিম বিল্লাহ
নেতৃবৃন্দ বলেন, বিংশ শতাব্দীর দ্বিতীয়ার্ধে যিনি আধুনিক বাংলা কবিতাকে নতুন আঙ্গিকে, চেতনায় ও বাক্‌ভঙ্গিতে বিশেষভাবে সমৃদ্ধ করেছেন, তিনি কবি আল মাহমুদ। আধুনিক বাংলা সাহিত্যের অন্যতম প্রধান কবিও তিনি। তাঁর প্রকৃত নাম মীর আবদুস শুকুর আল মাহমুদ। ১৯৩৬ সালের ১১ জুলাই বি-বাড়িয়া জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি একাধারে একজন শক্তিমান কবি, ঔপন্যাসিক, প্রাবন্ধিক, ছোটগল্প লেখক, শিশুসাহিত্যিক ও সব্যসাচী লেখক ছিলেন।

‘সোনালী কাবিন’-এর কবি আল মাহমুদ শুক্রবার মারা যাওয়ার ইচ্ছার কথা নিজের রচিত একটি কবিতায় উল্লেখ করেছিলেন। মহান আল্লাহ কবিকে সেই আকাঙ্খিত দিনেই পরম সান্নিধ্যের ডাক দিলেন।
তিনি ১৫ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার রাত ১১.৫ মিনিটে ঢাকা ইবনে সিনা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। (ইন্না‌লিল্লা‌হি ওয়া ইন্না ইলাইহি রা‌জিউন)। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮২ বছর।
স্মৃতির মেঘলাভোর নামের ওই কবিতায় নিজ আকাঙ্খা যেভাবে ব্যক্ত করেছিলেন তিনি
“কোনো এক ভোরবেলা, রাত্রিশেষে শুভ শুক্রবারে মৃত্যুর ফেরেস্তা এসে যদি দেয় যাওয়ার তাকিদ;
অপ্রস্তুত এলোমেলো এ গৃহের আলো অন্ধকারে
ভালোমন্দ যা ঘটুক, মেনে নেবো: এ আমার ঈদ”।
নেতৃবৃন্দ মহান এ কবির আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারবর্গসহ তাঁর সকল ছাত্র,ভক্ত ও শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।
আল্লাহ তায়ালা ভুল-ত্রুটি ক্ষমা করে জান্নাতুল ফেরদৌস নসীব করুন। আমিন।
আপনার মতামত দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category